1. info@voicectg.com : Voice Ctg :
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৭:৪০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পুলিশের অভিযানে দেশীয় অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক ২ – ভয়েস চট্টগ্রাম ন্যাটো-রাশিয়া পারমাণবিক যুদ্ধে প্রথম ঘণ্টায় যা হতে পারে। কক্সবাজারে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে হোটেলে ওঠা তরুণীর মৃত্যু। আকাশে ওড়ার ১৫ মিনিটের মাথায় নভোএয়ারের জরুরি অবতরণ। এবার ঘুমধুমের টমটম চালক আনিসের ঝুড়িতে মিললো ৬১১২ পিস ইয়াবা। ১৭ মে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও গণতন্ত্রের অগ্নিবীণার প্রত্যাবর্তন দিবস -তথ্যমন্ত্রী। বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরিনা আফরিন মুস্তাফার বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত। আওয়ামীলীগের মাঠজরীপে আছহাব উদ্দিন মেম্বার আবারো জনপ্রিয়তার শীর্ষে। মেয়ে তুমি জম্মেই অভিশপ্ত – লেখক: বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কাজল দাশ, সম্পাদক ভয়েস চট্টগ্রাম উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ইয়াবাসহ এক নারী মাদককারবারি আটক।

বোয়ালমারীর ঘোষপুর ইউপিতে দলীয় মনোনয়ন লাভে শতভাগ আশাবাদী এমপিআর পিকুল মিয়া

সহ নির্বাহী সম্পাদক ইন্জিঃ শাহনেওয়াজ খান মিলন
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২১

 

ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলার ১নং ঘোষপুর ইউনিয়নের নির্যাতিত,নিষ্পেষিত, নিপীড়িত,অধিকারহারা বঞ্চিত মানুষের প্রত্যাশাপুরণে জনগণের পাশে থেকে ইউনিয়নবাসীর সেবা করার প্রত্যয় নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে চান,ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা তরুণ নেতৃত্ব, উদীয়মান সংগ্রামী জননেতা জনাব এমপিআর পিকুল মিয়া।

ঘোষপুর ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়নে রুপ দিতে চান। যেখানে থাকবে না কোনো অন্যায় অত্যাচার, নির্যাতন নিপীড়ন। থাকবে না কোনো দূর্নীতি,স্বজনপ্রীতি, পকেটপ্রীতি। উন্নত,আধুনিক ও শান্তি-সমৃদ্ধিশীল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলার দৃঢ় অঙ্গিকার নিয়ে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী ১নং ঘোষপুর ইউনিয়নের সাবেক সচিব মরহুম মোঃ আবদুল মজিদ মোল্লার নাতি,বিশিষ্ট সমাজসেবক,শিক্ষানুরাগী, উচ্চ শিক্ষিত (ডাবল এমএ পাশ),জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক,সাবেক ছাত্রলীগ,যুবলীগনেতা ও বর্তমান আওয়ামীলীগ নেতা।অধিক জনপ্রিয়,ভদ্রশান্ত শিষ্ট, পরোপকারী,সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য, তারুণ্যের প্রতীক,গতিশীল নেতৃত্ব, অনলবর্ষী বক্তা এমপিআর পিকুল মিয়া।

নিজ দল আওয়ামিলীগ ও ইউনিয়নবাসীর উপর প্রবল বিশ্বাস নিয়ে ঘোষপুর ইউনিয়নে গন-সংযোগ করে চলেছেন তিনি। গনসংযোগ কালে তিনি বলেন, আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। ঘোষপুর ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সহযোগিতা চাই। গণসংযোগে সর্বস্তরের মানুষ স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করে।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, আমি আশাবাদী যে নেতাকর্মীরা সম্মিলিতভাবেই আমাকে সমর্থণ জানাবেন। কারণ, আমি দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। সকল নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের পক্ষে আমি কাজ করে আসছি। আমার দাদা মরহুম আবদুল মজিদ মোল্লা দীর্ঘ ৪০(চল্লিশ) বছর ঘোষপুর ইউনিয়নবাসীর সেবা করেছেন। আমাদের পরিবার আরও অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সমাজসেবামুলক কাজের সাথে জড়িত।যেমন-ভীমপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতা ও জমির দাতা। ভীমপুর মসজিদ, মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠা ও জমির দাতা।
তিনি বলেন,নিজের উন্নয়ন করার জন্য কখনো রাজনীতি করি না। ব্যক্তিগত উদ্যোগে ও অর্থায়নে সকল দলীয় কর্মসূচি বাস্তবায়ন করার সাথে সাথে সমাজের সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা করে যাচ্ছি। কারণ আমার রাজনীতির মূল উদ্দেশ্যই হলো জনগণের কল্যাণে কাজ করা। সেই লক্ষ্যকে ধারণ করেই রাজনীতি করি। সে কারণে আওয়ামীলীগের প্রার্থী যেই হোক, এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে এবং দলের স্বার্থে নিঃস্বার্থভাবে তার পক্ষে কাজ করেছি। এছাড়াও নিজ এলাকার বাহিরেও সহায়তার হাত বাড়িয়েছি। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক- সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করে আসছি।
আমি ব্যক্তি উদ্যোগে করোনা মহামারীতে অনেক পরিবারকে বিভিন্নভাবে সাহায্য সহযোগীতা করেছি,করছি।
তিনি আরও বলেন,ব্যক্তি উদ্যোগে সীমিতভাবে কল্যাণ করা যায়। সর্বাত্মকভাবে সমাজসেবা করতে চাইলে জনপ্রতিনিধি হওয়া দরকার। বিশেষ করে সরকারী সাহায্য,সহযোগিতা ও জনকল্যাণমুলক কাজ তৃণমূলের সর্বস্তরের মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার মাধ্যমে সমাজের সামগ্রিক কল্যাণ সাধিত হয়। তাই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচনের মধ্য দিয়ে জনপ্রতিনিধি হওয়ার প্রত্যাশা নিয়েই রাজনীতি করি।
দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে তিনি আরও বলেন, আমার প্রার্থীতার বিষয়ে সকল যোগ্যতার কথা তুলে ধরবো। আমি আশাকরি স্থানীয় সংসদ সদস্য জনাব মন্জুর হোসেন বুলবুল এবং ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা আওয়ামীলীগের সকল নেতৃবৃন্দ সম্মিলিতভাবে আমাকে সহযোগিতা করবেন।
আশাকরি,একই ভাবে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কারিগর, বঙ্গবন্ধু কন্যা,দেশরত্ন,জননেত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও আমাকে মনোনয়ন দিবেন। তিনি যদি আমাকে মনোনয়ন দেন,তাহলে বিজয় সুনিশ্চিত। কারণ ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক জনসম্পৃক্ততা, দলীয় নেতাকর্মীদের সমন্বিত প্রয়াস এবং প্রিয় ইউনিয়ন বাসীর সাথে আমার নিবিড় সম্পর্কের সূত্র ধরে ভোট বিপ্লব ঘটানোর মাধ্যমে বিজয় সম্ভব হবে।

আওয়ামীলীগ সরকারের বিভিন্ন অনুদান নিশ্চিত করতে ও সাফল্যের সর্বোচ্চ প্রাপ্তি ঘোষপুর ইউনিয়নবাসিকে দিতে চাই।সরকারের দেওয়া সকল অনুদান সুষম বণ্টন করবো ইনশাআল্লাহ। কেউ এটা আত্মসাৎ করতে পারবে না। আগামী প্রজন্মের নিরাপদ ও মানসম্পন্ন ভবিষ্যৎ গড়াই আমার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। ঘোষপুর ইউনিয়নকে একটি মাদকমুক্ত,চাঁদাবাজমুক্ত,
দখলমুক্ত,শোষনমুক্ত ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলাই সর্বস্তরের মানুষের
দাবী। আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে জনগণের এদাবী সর্বাগ্রে পুরণ করবো ইনশাআল্লাহ। এছাড়া পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ইউনিয়ন গড়ে তুলে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবো ইনশাআল্লাহ। এব্যাপারে ইউনিয়নবাসীসহ আওয়ামিলীগ ও সহযোগি অঙ্গসংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের সহযোগিতা চাই। তিনি ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের কাছে আবেদন করে বলেন,আমাকে একটাবার আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেন।আমি ঘোষপুর ইউনিয়নকে একটি আধূনিক মডেল ইউনিয়নে পরিনত করবো ইনশাআল্লাহ। Voice ctg.comকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেন। পরিশেষে ইউনিয়নবাসীর সার্বিক মঙ্গল ও সুস্বাস্থ্য কামনা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে বক্তব্য সমাপ্তি ঘোষনা করেন। জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট নকশা প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত